সেই ছেলেটি পরিচয় বলতে পেরেছে ,এখন স্বজনের কাছে তুলে দেওয়ার অপেক্ষা ……………….

with No Comments

nasar2

ছোট্ট ছেলেটির নাম মুন্না । বয়স আনুমানিক ১০ বছর ।২ দিন পর সে কথা বলতে পারছে । বলতে পেরেছে তার পরিচয় । বাবার নাম নাসির । ছেলেটির বাবা পেশায় রিক্সা চালক। চিটাগাং এ রিক্সা চালান তিনি । ছেলেটির বাসা ফয়েজ লেক এর পিছনে । বস্তি তে থাকে ছেলেটি । ছেলেটির মাথা গতকাল সিটি স্কেন করা হয়েছে । এতে সহযোগিতা করেছেন পূর্বকোনের সাংবাদিক মোহাম্মাদ আলি ভাই। উনার প্রতি আমি আন্তরিক ভাবে কিতজ্ঞ । কিন্তু সিটি স্কেন রিপোর্টের ফলাফল এত ভালো নেই ।মাথায় প্রচুর জখম । এবং মাথায় ৭-৮ টি সেলাই দেওয়া আছে ।

প্রসঙ্গত ঃ চিটাগাং এর বিবির হাট এলাকায় তেল বাহী রেলগাড়ির সামনে পড়ে গুরুতর আহত হয় ছেলেটি । গতকাল০৭.০৬.২০১৬ সকাল ১০.০০ ঘটিকায়,২৮ নং ওয়ার্ডে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয় ছেলেটিকে । বাম পায়ের হাঁটুর নিচে পা দু খণ্ডিত এবং মাথায় প্রচুর আঘাত পেয়েছে ।
( যাক ইনশাল্লাহ আল্লাহর রহমতে চিকিৎসা চলছে )

ছোট(১০) বছর বয়সের একজন ছেলে অজ্ঞাত অবস্থায় হস্পাতালে ,দু খণ্ডিত বাম পা !

with No Comments

nasar2

ছোট বাচ্চা ।চিৎকারে ভারি হয়ে আসছে হাসপাতালের ওয়ার্ড ।বাম পায়ের হাঁটুর নিচে পা দু খণ্ডিত হয়ে ঝুলছে এবং মাথায় প্রচুর আঘাত পেয়েছে ।চিটাগাং এর বিবির হাট এলাকায় তেল বাহী রেলগাড়ির সামনে পড়ে গুরুতর আহত হয় ছেলেটি । কথা বলতে পারছে না ।সুধু বাড়ি রংপুর এই কথাটাই বলতে পারে ।এখন পর্যন্ত পারিবারের খোঁজ পাওয়া যায় নি । ছেলেটির পরনের কাপড় দেখে মনে হল পথ শিশু ।পরিবারের সাথে তেমন সম্পর্ক নেই । বয়স আনুমানিক ০৮ -১০ বছর ।গতকাল 07.06.2016 সকাল ১০.০০ ঘটিকায়,২৮ নং ওয়ার্ডে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয় । সেই সকাল থেকে রাত ৯.০০ পর্যন্ত এভাবেই দু খণ্ডিত পা নিয়ে পড়ে ছিল ওয়ার্ডে । পুলিশ এর সহযোগিতায় ৩ টি এক্সরে করানো হয়েছে ।একটি মাথায় এবং অপর দুটি পায়ে ।এরপর এক্সরে রিপোর্ট নিয়ে আপারেশন থিয়েটার এ নিয়ে যাওয়া হয় । যাক ইনশাল্লাহ আল্লাহর রহমতে চিকিৎসা চলছে ।
( অল্প কিছু সময়ের মধ্য ছবি প্রকাশ করব ইনশাল্লাহ )

অজ্ঞাত এই মহিলা আপনাদের কারো পরিচিত !

with No Comments

অজ্ঞাত এই মহিলা আপনাদের কারো পরিচিত !
শরীরে মোড়ান জীর্ণ শীর্ণ শারি ।মাথার চুল সব গুলুই সাদা ।বয়স আনুমানিক ৬০ বছর। ০১.০৬.২০১৬ তারিখ দুপুর ২.০০ টায় ১৪ নং ওয়ার্ডে মহিলাটিকে ভর্তি করানো হয় । মুরাদপুর ডাচ বাংলা বুথ এর সামনে থেকে তাকে আনা হয় । খুব ভাল ভাবে কথা বলতে পারছেনা ।কথা বলতে খুবই কষ্ট হচ্ছে ।শরীরে ভীষণ জ্বর ।জ্বরের কারনে অজ্ঞান হয়ে রাস্তায় পরে ছিলেন তিনি ।জ্বরের সাথে অন্যান্য রোগ দেখা দিয়েছে ।আল্লাহর রহমতে চিকিৎসা চলছে ।সকলে এই বয়স্ক মা এর জন্য দোয়া করবেন ।যাতে দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠে ।

কোথায় হবে তার ঠিকানা তিনি,২ মাসেও স্বজনের খোঁজ মিলছে না ।…….

with No Comments
 
 
এখন অনেকটা সুস্থ ,২ মাস যাবত কোন স্বজন আসছে না ।পা এবং মাথায় আঘাত ছিল ।মাথায় সেলাই করা হয়েছিলো ।মাথার সেলাই সুকিয়ে গিয়েছে ।কিন্তু পায়ের আঘাত এখনও পরিপূর্ণ ভাবে ঠিক হয়নি ।তাকে নিউরলজি ডিপার্টমেন্ট থেকে অরথপেডিইক্স ওয়ার্ডে নেওয়া জরুরী ।কিন্তু হাসপাতালের কেউ নিতে চাচ্ছে না ।এখন পর্যন্ত বয়স্ক মার কোন পরিচয় সনাক্ত করতে পারিনি ।২৮ নং ওয়ার্ডের বারান্দায় শুয়েই তার সময় কাটছে ।
 
প্রসঙ্গত ঃ ০৮.০৩.২০১৬ তারিখ ২৮ নং ওয়ার্ডের বারান্দায় ভর্তি করানো হয় এই বয়স্ক মা কে।সাগরিকা রোড থেকে কে বা কারা তুলে এনে হাসপাতালে ভর্তি করায় ।মুখে দাঁত নেই বললেই চলে ।চোখ পাকিয়ে চায় সকলের দিকে ।কিন্তু কথা বলেনা

অজ্ঞাত এই বয়স্ক মানুষটি আর বেঁচে নেই , এখনও খোঁজ মিলেনি ।

with No Comments

 

গতকাল রাত ১০.৩৫ মিনিটে এই বয়স্ক লোকটি মারা যান ।ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্নাইলাহি রাজিউন ।এখন পর্যন্ত তার স্বজনের খোঁজ মিলেনি ।উপযুক্ত চিকিৎসা পাওয়ার চেষ্টা করেছিলাম ।সিটি এস্কেন সহ ওষুধ সকল কোন কিছুর অভাব ছিল না ।মাহবুব ভাই ,রনি ও লোকটির জন্য সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেয় ।কিন্তু ধরে রাখা গেল না বয়স্ক বাবা টাকে ।আল্লাহ তার বেহেস্ত নসীব করুক ।প্রসঙ্গত সাতকানিয়া বাজারের মাজখানে সড়ক দুর্ঘটনায় মাথায় প্রচুর আঘাত পায় । কে বা কাহারা ১৭.০৫.২০১৬ দুপুর ১.২০ মিনিট এ সি এম সিতে জরুরি বিভাগে আনে ।২৮ নং ওয়ার্ডে ভর্তি করানো হয়।বয়স আনুমানিক ৬০ বছর। লোকটি সাদা পাঞ্জাবি পড়া ছিল ।পকেটে তপছি ছিল ।এবং হাজি গামছা ছিল ।মুখু মণ্ডলে সাদা দাড়ি ।ফরেজগার মনে হচ্ছে উনাকে

অজ্ঞাত এই বয়স্ক মানুষটির এখনও খোঁজ মিলেনি ।

with No Comments

DSC03347

সাতকানিয়া বাজারের মাজখানে সড়ক দুর্ঘটনায় মাথায় প্রচুর আঘাত পায় । কে বা কাহারা আজ ১৭.০৫.২০১৬ দুপুর ১.২০ মিনিট এ সি এম সিতে জরুরি বিভাগে আনে ।২৮ নং ওয়ার্ডে ভর্তি করানো হয়।বয়স আনুমানিক ৬০ বছর।মাহবুব ভাই এর আর্থিক সহযোগিতায় এই বয়স্ক মানুষটিকে সিটি এস্কেন করানো হয়েছে ।কিন্তু রিপোর্ট ভাল আসেনি ।মাথায় প্রচুর রক্ত ক্ষরণ হয়েছে । মিত্তুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে লোকটি। লোকটি সাদা পাঞ্জাবি পড়া ছিল ।পকেটে তপছি ছিল ।এবং হাজি গামছা ছিল ।মুখু মণ্ডলে সাদা দাড়ি ।ফরেজগার মনে হচ্ছে উনাকে । সকলে এই মুরব্বীর জন্য দোয়া করবেন যাতে তার স্বজনদের খুঁজে পাই । তার অবস্থা অত্তান্ত খারাপ ।

ছবি ও আলামত হিসেবে কিছু কাপড় দেওয়া হল ।

1 22 23 24 25 26 27